লাইফটাইম অ্যাচিভম্যান্ট অ্যাওয়ার্ড তারকা কে, এস, ফিরোজ

Reporter Name
  • Update Time : Monday, October 21, 2019
  • 58 Time View

পুরো নাম : খোন্দকার শহীদ উদ্দিন ফিরোজ (কে, এস, ফিরোজ)
শিক্ষাগত যোগ্যতা: মটর প্রকৌশলী
কর্ম জীবন : সেনাবাহিনী
ক) প্রকল্প পরিচালক/ মহাপরিচালক (ট্রান্সপোর্ট এ- ইকুইপমেন্ট মেইন্টেনেন্স অর্গানাইজেশন (টি ইএমও) ইউএনডিপি এর এফডি প্রকল্প।
পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ। স্বাস্থ ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়। খ) পরিচালক (কারিগরী), বিআরটিসি, গ) বিশ্ব ব্যাংকের আর্থিক সহযেগিতায় ঢাকা মহানগর পরিবহন প্রকল্পে “ট্রান্সপোর্ট স্পেশালিস্ট”।
নাটকে অভিনয়ের যাত্রা শুরু ১৯৬৪ খ্রী: মঞ্চ নাটক দিয়ে। একেবারেই শখে অভিনয় করতাম। ১৯৬৫ খ্রী: নভেম্বরে প্রথম টেলিভিশনে অভিনয় করার সুযোগ পাই প্রযোজক শ্রদ্ধেয় জামান আলী খান সাহেবের মাধ্যমে। প্রথম নাটক “দ্বীপ তবু জ্বলে”। তারপর চার/পাঁচটি নাটকে অংশগ্রণের পর সামরিক বাহিনীতে যোগদান করি, তাই আর নাটকে অভিনয় সুযোগ হয়ে উঠেনি। এরপর ১৯৭৯ খ্রী: ঢাকার একটি নাট্যগোষ্ঠি “উন্মোচন” এ যোগদান করি এবং দুটি নাটকে অংশগ্রহণ করি। এরমধ্যে “আজরাইলের পোস্ট মর্টাম” নাটকটি বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেিেছল। “উন্মোচন” এর কাজ চার বছরের মাথায় এসে শেষ হয়ে যায়। ১৯৮৩ খ্রী: থেকে বাংলাদেশ টেলিভিশনে পুনরায় অভিনয় শুরু করি। এরপর শীর্ষ স্থানীয় নাট্যগোষ্ঠি “থিয়েটারে” যোগদান করি ১৯৮৮ খ্রী থেকে এখনো থিয়েটারের সাথে কাজ করে যাচ্ছি।

উল্লেখযোগ্য নাটক “মঞ্চ” : নাম স্মরণ নেই (প্রথম নাটক) ১৯৬৪ সনের প্রথম দিকে মঞ্চায়ন হয়েছিল। রাহু মুক্তি, আগন্তক, দায়ী কে, আজরাইলের পোস্ট মর্টাম, রাক্ষুসী, কিং লীয়র, বলদ।

বাাংলাদেশ টেলিভিশন: দ্বীপ তবু জ্বলে (প্রচার: ২১ নভেম্বর ১৯৬৫)। উত্তর পুরুষ (প্রচার: ১৩ মার্চ ১৯৬৯)। প্রতিশ্রুতি (ধারাবাহিক), চর আতর জান, সেই এক মানুষ, জোনাকী জ্বলে, অয়োময়, অশ্রু ভেজা ছোঁয়া, বারো রকমের মানুষ, ও আমার চক্ষু নাই, প্রেম নগর (ধারাবাহিক)।

চলচ্চিত্র: লওয়ারিশ, তুমি আমার, শঙ্খনাদ, বাঁশী, চন্দ্রগ্রহণ, দেবদাশ, শিখণ্ডিকথা, নয়ন রহস্য (ফেলুদা সিরিজ)

পদক/সম্মাননা : টেলিভিশন নাটকে অভিনয়ের জন্য : টেনাসিনাস পদক। টেলিভিশন দর্শক ফোরাম পদক ২০০৫ : শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা (ও আমার চক্ষু নাই)।

রাওয়া এর পক্ষ থেকে আজীবন সম্মাননা পদক ২০০৭ : বাংলাদেশ সাংস্কৃতি পরিষদ (বাসপ) পদক ২০০৮। মেজাব এর আজীবন সম্মাননা পদক ২০০৭।
০৮। সহধর্মিনী : মাধবী ফিরোজ, উচ্চাঙ্গ সংগীত শিল্পী।
কন্যা: নাদিয়া ফিরোজ, নজরুল ও আধুনিক সংগীত শিল্পী। সাদিয়া ফিরোজ, আধুনিক সংগীত শিল্পী। ব্যারিস্টার রাবিয়া জাহান ফিরোজ
ব্যক্তিগত পছন্দ : সংগীত, অভিনয়, দেশভ্রমণ ও সৎ সঙ্গ। লাল গোলাপ, রজনীগন্ধ্যা, প্রিয় ফল আম। অপছন্দ : মিথ্যে বলা।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category