বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫৫ অপরাহ্ন

নতুন আলোর সন্ধানে ছায়ানটের বর্ষবরণ

ফোরাম প্রতিবেদক / ৬৮ জন দেখেছেন
আপডেট : এপ্রিল ১৪, ২০২৩
নতুন আলোর সন্ধানে ছায়ানটের বর্ষবরণ
দর্শক ফোরামের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: নতুন আলোর সন্ধানে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর রমনার বটমূলে শুরু হয়েছে ছায়ানটের বর্ষবরণ ১৪৩০এর অনুষ্ঠান। পরে জাতীয় সংগীতের মধ্যদিয়ে শেষ হয়েছে অনুষ্ঠান। আজ (শুক্রবার) ভোর ৬টা ১৫ মিনিটের দিকে শুরু হয় বাংলা ১৪৩০ সালকে বরণ করে নেওয়ার এই ঐতিহ্যবাহী আয়োজন চলে দুই ঘন্টারও বেশি সময়।

শুরুতেই পরিবেশন করা হয় আট মিনিটের আহির ভৈরব সুরের সারেঙ্গি বাদন। ছায়ানটের শিল্পীদের বাজনা মুহূর্তেই মুগ্ধতা ছড়িয়ে দেয় রমনাজুড়ে। আহির ভৈরবের পর প্রথমে সমবেত কণ্ঠে সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পীরা। এরপর একক গানে ফুটিয়ে তুলছেন প্রকৃতি, মানবপ্রেম, দেশপ্রেম ও আত্মবোধনের অনুভব। গানের ফাঁকে ফাঁকে চলে কবিতা আবৃত্তি।

অনুষ্ঠানে একে একে ১০টি সম্মিলিত গান, ১১টি একক গান, দুটি আবৃত্তি আর সবশেষে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে শেষ হয় পহেলা বৈশাখের উৎসব। জাতীয় সংগীত গাওয়ার সময় বটমূলে আসা সবাই দাঁড়িয়ে ছায়ানটের শিল্পীদের সঙ্গে জাতীয় সংগীতে সুর মেলান। এবারের গানগুলো সাজানো হয়েছে নতুন স্নিগ্ধ আলোয় স্নাত প্রকৃতির গান, মানবপ্রেম, দেশপ্রেম, আত্মবোধন আর জাগরণের সুরবাণী দিয়ে।

রমজান মাসের কারণে এবারের আয়োজনে অন্যান্য বারের চেয়ে মানুষের উপস্থিতি কম হলেও সকাল থেকে রমনার বটমূলে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ছুটে আসে বহু মানুষ। প্রতি বছরের মতো এবারও জোর নিরাপত্তায় বর্ষবরণ অনুষ্ঠান হয়েছে। বর্ষবরণ অনুষ্ঠান ঘিরে রমনা পার্ক, বটমূল ও এর আশপাশের এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি রয়েছে চোখে পড়ার মতো।

রাজধানীতে ১৯৬৭ সালে প্রথম রমনার বটমূলে পহেলা বৈশাখের সূর্যোদয়ের সময় সংগীতানুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল সংগীত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছায়ানট। সেই অনুষ্ঠানই মূলত বাংলা নববর্ষ বরণের সাংস্কৃতিক উৎসবকে সারাদেশে ছড়িয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে প্রেরণা যুগিয়েছে।

সেই থেকে (১৯৬৭) পহেলা বৈশাখ উদযাপনের একটা অবিচ্ছেদ্য অনুষঙ্গও হয়ে উঠেছে ছায়ানটের বর্ষবরণের আয়োজন। এরপর কেবল ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বৈরী পরিবেশের কারণে অনুষ্ঠান হতে পারেনি। ২০০১ সালে এ গানের অনুষ্ঠানে জঙ্গিরা ভয়াবহ বোমা হামলা করলেও অনুষ্ঠানের ধারাবাহিকতায় ছেদ পড়েনি। এর মধ্যে করোনার কারণে ২০২০–২১ সালে বর্ষবরণের এই আয়োজন সম্ভব হয়নি। দুই বছর পর গতবছর সাড়ম্বরে রমনার বটমূলে বর্ষবরণের অনুষ্ঠান করে ছায়ানট।

The short URL of the present article is: https://tvforumbd.com/mzzx


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

এ বিভাগের আরো খবর

২১ জুন-23 অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান