সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন

আইকনিক কলম্বিয়া পিকচার্স লোগোর পিছনের গল্প

ফোরাম প্রতিবেদক / ৩৮৫ জন দেখেছেন
আপডেট : সেপ্টেম্বর ২, ২০২০
আইকনিক কলম্বিয়া পিকচার্স লোগোর পিছনের গল্প
দর্শক ফোরামের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন

কলম্বিয়া পিকচার্সের আইকনিক লোগো চোখে পড়েনি এমন সিনেমাপ্রেমি খোঁজে পাওয়া দায়! কলম্বিয়া পিকচার্সের মশালবাহী লোগোর কে ঐ নারী মডেল? নাকি এটি কোন থ্রিডি? আইকনিক কলম্বিয়া পিকচার্সের লোগোর ফটোশুটের পিছনে আছে এক গল্প।

১৯৯২ সালে আজকের কলম্বিয়া পিকচার্সের লোগোর জন্য মডেল হয়েছিলেন জেনি জোসেফ। তখন তার বয়স ছিল ২৮ বছর। জেনি জোসেফের করা সেই মডেলিং এখনো সারাবিশ্বের কাছে আইকনিক লোগো। অথছ তিনি তেমন আগ্রহী ছিলেন না মডেলিং করতে, এমনকি অনিচ্ছায় মাত্র অল্প সময় বরাদ্ধ দিয়েছিলেন শুটিংয়ের জন্যে।

কলম্বিয়া পিকচার হল আমেরিকার একটি স্টুডিও, প্রোডাকশন হাউজ ও সিনেমা বাজারজাত করণ প্রতিষ্ঠান। ১৯১৮ সালে সিবিসি নামে এই প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু। পরে ১৯২৪ সালে নব রুপে তারা কলম্বিয়া পিকচার নামে আবির্ভূত হয়। পৃথিবীর প্রাচীন সিনেমা ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে যেটি একটি। যাত্রাকালে কলম্বিয়া পিকচার্সে একটি লোগো ব্যবহার করা হয়েছিল, যেখানে একজন মহিলা রোমান সৈনিকের বাম হাতে মশাল এবং ডান হাতে গমের কাঠি ছিল।

১৯২৮ সালে তাদের লোগোতে কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়। একটি সুতাযুক্ত পতাকা এবং টর্চ পরা মহিলার সাথে লোগো পরিবর্তন হয়েছিল। মহিলাটি স্টোলাটি পরতেন এবং প্রাচীন রোমের পাল্লা বহন করতেন এবং তার উপরে একটি আর্কে লেখা “এ কলম্বিয়া প্রোডাকশন”।

বর্তমান লোগোটি ১৯৯২ সালে নির্মিত হয়েছিল এবং তার পরের বছরেই ফিল্মগুলিতে এটির ব্যবহার শুরু হয়েছে। মেডনিক নিউ অরলিন্স শিল্পী মাইকেল ডাসকে নিয়োগ করা হয় আধুনিক রুপে লোগোটি পুনরায় রঙ করতে এবং মহিলাকে তার “ক্লাসিক” চেহারাতে ফিরিয়ে আনতে। মাইকেল ডীস লিনোগুলির মডেল হিসাবে টাইমস-পিকায়ুনের গ্রাফিক্স শিল্পী জেনি জোসেফকে নিয়োগ করেন। সময়ের সীমাবদ্ধতার কারণে, তিনি তার মধ্যাহ্নভোজন বিরতিতে সাহায্য করতে সম্মত হন।

ক্যাথির নিউ অরলিন্সের অ্যাপার্টমেন্টের বসার ঘরে একটি বড় পটভূমি, চিমেরা সফটবক্স এবং একটি ডায়নালাইট ফ্ল্যাশ ইউনিট স্থাপন করে দ্রুত একটি অস্থায়ী ফটো স্টুডিওতে রূপান্তরিত হয়েছিল। খুবেই ছোট পরিসরে স্বল্প সময়ে শুটিং হওয়া সেই লোগোটি কালজয়ী হবে কখন ভাবেনি জেনি জোসেফ। ২০১২ সালে এক সাক্ষাৎকারে জেনি জোসেফ বলেছিলেন, “আমরা কেবল সেখানে মধ্যাহ্নভোজনের সময় শুটিং করেছিলাম এবং তারা আমার চারপাশে একটি চাদর জড়িয়ে দেয় এবং আমি একটি নিয়মিত ছোট ডেস্ক ল্যাম্প, একটি পাশের বাতি রেখেছিলাম,।”

তিনি আরো বলেছিলেন, “আমি কেবল এটি ধরে রেখেছিলাম এবং আমরা একটি হালকা বাল্ব দিয়ে তা করেছি, আমি কখনই ভাবিনি যে এটি রূপালী পর্দায় স্থান করে নেবে এবং আমি কখনও ভাবিনি যে এটি ২৮ বছর পরেও চলবে, এবং আমি কখনই ভাবি নি যে এটি কোনও সংগ্রহশালায় থাকবে, সুতরাং এটি এক ধরনের পরিতৃপ্তি।”

The short URL of the present article is: https://tvforumbd.com/2cvr


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

এ বিভাগের আরো খবর

২১ জুন-23 অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান