অনুমতি ছাড়া আর চলবে না ডাবিং বিদেশি টিভি সিরিয়াল

ফোরাম প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৬৬ জন দেখেছেন
অনুমতি ছাড়া আর চলবে না ডাবিং বিদেশি টিভি সিরিয়াল
অনুমতি ছাড়া আর চলবে না ডাবিং বিদেশি টিভি সিরিয়াল

একের পর এক বিদেশি ডাবিং টিভি সিরিয়াল প্রচার হচ্ছে দেশীয় চ্যানেলগুলোতে। বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই নাটকের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলো প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিল। তবে কিছুতেই কিছু যেন হচ্ছিল না।

সম্প্রতি টিভি নাটকের বিভিন্ন সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকে বসেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। এরপর সিদ্ধান্ত হয় বিদেশি টিভি সিরিয়াল প্রচারের আগে তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রিভিউ কমিটি থেকে অনুমোদন নিতে হবে।

এরই ধারাবাহিকতায় বেসরকারি টিভি চ্যানেলে ডাবিং করে বিদেশি সিরিয়াল বা অনুষ্ঠান প্রচারের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আর সেই অনুমতি মিলবে প্রিভিউ কমিটি থেকে।

গত ২৭ নভেম্বর প্রকাশ হওয়া তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে জানা গেছে, গঠন করা হয়েছে প্রিভিউ কমিটি। ৯ সদস্যবিশিষ্ট এই কমিটিতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবকে (সম্প্রচার) সভাপতি এবং উপসচিবকে (টিভি ২) সদস্য সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

এখানে সদস্য হিসেবে রয়েছেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক, নাট্যব্যক্তিত্ব মামুনুর রশীদ, সারা যাকের এবং অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স, ডিরেক্টরস গিল্ড ও অভিনয় শিল্পী সংঘ থেকে একজন করে প্রতিনিধি।

এই কমিটি ডাবিংকৃত কোনও বিদেশি অনুষ্ঠান বা সিরিয়াল দেখার পর অনুমতি দিলে তবেই সেটি চ্যানেলে প্রচারের যোগ্যতা পাবে; অন্যথায় নয়।

টেলিভিশন নাটকের শিল্পীদের সংগঠন অভিনয় শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম বলেন, ‘খুবই ভালো লাগছে যে অবশেষে বিদেশি অনুষ্ঠান ও সিরিয়াল ডাবিং করে প্রচারের ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম হচ্ছে। প্রিভিউ কমিটিটা দরকার ছিল। সবার সম্মিলিত অংশগ্রহণে দেশের সংস্কৃতির স্বার্থ রক্ষা পাবে বলে মনে করি আমি।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপসচিব রোজিনা সুলতানা স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, প্রয়োজন হলে প্রতি সপ্তাহে ২/৩ দিন তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে প্রিভিউ অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি প্রিভিউ অনুষ্ঠানে কমিটির ৭৫ ভাগ সদস্যদের উপস্থিত থাকতে হবে।

উল্লেখ্য, বিভিন্ন চ্যানেলে বাংলায় ডাবিংকৃত বিদেশি সিরিয়াল বন্ধের দাবিতে ২০১৬ সালের শেষ দিকে আন্দোলনে অংশ নেয় শিল্পী-কলাকুশলীদের ১৪টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত ফেডারেশন অব টেলিভিশন প্রফেশনাল অর্গানাইজেশন (এফটিপিও)।

শেয়ার করুন

এ বিভাগের অন্যান্য খবর