মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০৫:২৬ অপরাহ্ন

অনলাইনেও সাড়া ফেলছে ‘পাপ পুণ্য’

ফোরাম প্রতিবেদক / ২২৪ জন দেখেছেন
আপডেট : জুলাই ১৪, ২০২২
অনলাইনেও সাড়া ফেলছে ‘পাপ পুণ্য’
দর্শক ফোরামের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন

গেল মে মাসে দেশ ও দেশের বাইরের শতাধিক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির পর ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিন চ্যানেল আইয়ের পর্দায় প্রিমিয়ার হয় গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত ইমপ্রেস টেলিফিল্মের তারকাবহুল ছবি ‘পাপ পুণ্য’। এবার সিনেমাটি দেখা যাচ্ছে অনলাইনেও।

সোমবার (১১ জুলাই) চ্যানেল আইয়ের পর্দায় প্রিমিয়ারের পর থেকেই চ্যানেল আইয়ের ইউটিউবেও অবমুক্ত হয় ‘পাপ পুণ্য’। যার পর পরই দর্শকের অজস্র ইতিবাচক মন্তব্য পাচ্ছে সিনেমাটি। এরইমধ্যে প্রায় সাড়ে ৭ লাখ বার দেখা হয়েছে মনপুরা খ্যাত নির্মাতার এই ছবিটি। যা দেখে ইতোমধ্যে মন্তব্য করেছেন দুই হাজারের বেশি মানুষ।

সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হলো, দর্শকের করা মন্তব্যের সবগুলো ইতিবাচক। কোনো নেতিবাচক মন্তব্য নেই বললেই চলে! রিয়াজ নামের একজন সিনেমাটি দেখে মন্তব্য করেছেন, ‘অনেকদিন পর দেখার মত ভালো কিছু পেলাম। গল্পটি আসলেই খুব সুন্দর। সিনেমার গল্পের সাথে সিনেমার নামটি একদম মিলে গেছে (পাপ পুণ্য)।

বিরাজ নামের এক ইউটিউব ব্যবহারকারী ‘পাপ পুণ্য’ দেখে লিখেছেন, ‘সত্যিই চোখে পানি চলে আসলো। এগিয়ে যাক আমাদের চলচ্চিত্র শিল্প। এরকম পরিচালক ও অভিনয় শিল্পীরা থাকলে বেঁচে থাকবে চলচ্চিত্র।’

নারায়ণ দেবনাথ নামের একজন লিখেছেন,‘এই মুভি দেখলে মনে হয়, বাংলার সিনেমা শিল্পের মৃত্যু হয়নি, এখনও বেঁচে আছে।’ ওমর ফারুক নামের এক দর্শক লিখেছেন,‘অসাধারণ সিনেমা…। চঞ্চল তো ফাটিয়ে দিয়েছে…। আর সিয়াম পুরাই আগুন ছিল। এত সুন্দর সিনেমা… কল্পনা করা যায় না…এটা বলিউডের সিনেমা হলে ব্লকবাস্টার হতো….প্রচরণা ও বাংলা সিনেমার প্রতি মানুষের আস্থাহীনতার কারণে সিনেমাটি হিট হয় নাই।’

মিথুন ধর নামের আরেকজন দর্শক লিখেছেন,‘সিনেমার শেষের ক্লাইমেক্স দেখে গুসবাম হচ্ছে। আর বাকিটা সত্যিকারের অসাধারণ ছবি। চঞ্চল চৌধুরী বরাবর গল্পের সাথে মিশে থাকেন এবং সবার অভিনয় দারুণ। অনেক দিন পরে আফসানা মিমি দারুণভাবে তার জায়গায় তিনি করেছেন। অনেক সুন্দর গল্প ও তার মেকিং।’

আরেক দর্শক লিখেছেন, ‘এত সুন্দর মুভি আমাদের দেশের, এটা ভাবতেই আমার অনেক ভালো লাগে। এমন জাত অভিনেতারা অভিনয় করলে আবার ঘুরে দাঁড়াবে বাংলা সিনেমা।’

দর্শকের করা বেশির ভাগ মন্তব্যই এরকম। শুধু বাংলাদেশি দর্শক নয়, বহু ভারতীয় দর্শকও সিনেমাটি দেখে তাদের ভালো লাগার কথা শেয়ার করছেন।

এই ছবির মধ্য দিয়ে ‘মনপুরা’র প্রায় এক যুগ পর গিয়াস উদ্দিন সেলিমের সিনেমায় অভিনয় করেছেন গুণী অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। শুরু থেকেই সিনেমাটি নিয়ে উচ্ছ্বসিত ছিলেন এই তারকা অভিনেতা।

চঞ্চল চৌধুরী ছাড়াও এই সিনমোয় অভিনয় করেছেন সিয়াম আহমেদ, শাহনাজ সুমি, আফসানা মিমি, মামুনুর রশিদ, ফজলুর রহমান বাবু, গাউসুল আলম শাওন, ফারজানা চুমকি, মনির খান শিমুল প্রমুখ।

মনপুরা, স্বপ্নজাল, গুণিনের পর ‘পাপ পুণ্য’ গিয়াস উদ্দিন সেলিমের চতুর্থ ছবি। জনপ্রিয় এই পরিচালক বলেন, চলচ্চিত্রের এই দুর্দিনে এমন ছবি দরকার যা ‘পাপ পুণ্য’র মতো। আগের ছবিগুলোর চেয়ে এটি সম্পূর্ণ আলাদা ফরম্যাটে বানানো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

এ বিভাগের আরো খবর

২১ জুন-23 অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান